সময়ের জনমাধ্যম

দ. আফ্রিকায় বাংলাদেশি ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যা

দক্ষিণ আফ্রিকায় নিজ দোকানে নোয়াখালীর এক ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যা করেছে কৃষ্ণাঙ্গ সন্ত্রাসীরা। এরপর সন্ত্রাসীরা প্রতিষ্ঠানে থাকা টাকা পয়সা ও মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

নিহত আবদুল মালেক (৫০) বেগমগঞ্জ উপজেলার ছয়ানী ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের দেবীপুর গ্রামের হাজী কলিম উদ্দিন মিয়াজী বাড়ির আবদুল ওয়াদুদের ছেলে।

শুক্রবার (১ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১টার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন নিহতের ছোট মেয়ে লামিয়া আক্তার। এর আগে গত বুধবার (৩০ আগস্ট) দক্ষিণ আফ্রিকার স্থানীয় সময় রাত ৮টার দিকে ডারবান শহরের নিহতের নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে এ ঘটনা ঘটে। বৃহস্পতিবার সকালে তার মৃত্যুর খবর গ্রামের বাড়িতে পৌঁছলে পরিবারের সদস্যদের মাঝে শুরু হয় মাতম।

নিহতের ছোট মেয়ে লামিয়া জানায়, তারা দুই বোন পরিবারের সঙ্গে জেলা শহর মাইজদীতে বসবাস করে। তার বাবা ১৭-১৮ বছর যাবৎ দক্ষিণ আফ্রিকার ডারবান শহরে ব্যবসা করছে। সর্বশেষ গত ১ মাস ১০ দিন আগে বাবা দেশ থেকে ডারবান শহরে যান। বুধবার রাত ৮টার দিকে তিনি নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে কাজ করছিলেন। ওই সময় স্থানীয় কয়েকজন অস্ত্রধারী ডাকাত তার প্রতিষ্ঠানে হামলা চালায়। একপর্যায়ে সন্ত্রাসীরা আমার বাবাকে গুলি করে হত্যা করে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ডারবান শহরের একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। নিহত প্রবাসী মালেকের লাশ বাংলাদেশে আনার ব্যবস্থা জন্য পরিবারের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীসহ সবার সহযোগিতা কামনা করেছেন।

ছয়ানী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ওহিদুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তার মৃত্যুর খবরে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। নিহতের পরিবার তার মরদেহ আনতে সরকারের সহযোগিতা কামনা করেছে।

2 Comments

leave a reply